কুমারখালীতে ২২ বছরের ছেলেকে স্বা’মী হিসেবে দাবি কর’লো ৬ স’ন্তানের জ’ননী

কুমা’রখালী শিলাইদহ ইউনিয়ন ক’ল্যাণপুর গ্ৰামের লিয়াকত আলী পুত্র মোঃ আবু মুসা (২২) পড়াশোনা ক’রতেন পাংশা সরকারি কলেজে মা’স্টা’র ্স পড়ুয়া ছেলে। সেই সুবাদে ম্যাসের বুয়া ৬ সন্তানের জননী,

হোসেন আলী মেয়ে সাং- পারনারায়নপুর, পাংশা। মোছাঃ রেহেনা খাতুন সাথে (৪৫) সাথে পরিচয় হয় মুসার।রেহেনার দা’বি মুসা আমা’র স্বা’মী! তাকে ২ লক্ষ টাকা দেন মোহর ধায্যো ক’রে নোটারি হলফনামা বিবাহ হয় ১৮/০৮/২০২০ ইং তারিখে রাজবাড়ী থেকে। অপর দিকে মুসা বলেন আমি পাংশা সরকারি কলেজে পড়াশোনা করতাম,

সেই সময় রেহেনা আমা’র ম্যাসের বুয়া কাজ করত। তার সাথে সেই সুবাদে পরিচয় । রেহেনার মেয়ে আমা’র বড়, পরিচয় হাওয়ায় কিছু দিন পর আমাকে জো’র’ পূর্বক রেহেনা ও তার ভাই অ’জ্ঞা’ত অনেকেই আমাকে দিয়ে একটা কাগজে সই ক’রে নেয়। রেহেনার স্বা’মী সন্তান সবি আছে। তার বাড়ি পাংশা কিন্তু সে কুমা’রখালী,

বাটিকামা’রা ঠিকানা ব্যবহার ক’রে আমা’র বি’রুদ্ধে অপপ্র’চার চালাচ্ছে। আমি রেহানাকে বিয়ে করিনি বিয়ে যদি করতাম তা হলে কাবিননামা ক’রা থাকতো। এই মু’হূর্তে আমি ও আমা’র পরিবার রেহেনার কার্যকলাপে অতিষ্ঠ। আমি এই নোটারি পাবলিক বিয়ে বিষয়ে রাজবাড়ী কোর্টে একটি অ’ভিযো’গ দায়ের ক’রেছি।

ভু’ক্তভো’গী ঐ নারী জা’নান, প্রা’য় ২ বছর পূর্বে আবু মুসা পাংশা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে তাদের বাড়ির পাশে ম্যাচে থেকে পড়াশোনা করতো। সেসময় হটাৎ একদিন তার ঘরে ঢু’কে মুসা তাকে জো’র’পূর্বক ধ’র্ষন ক’রে। বিষয়টি ঐ নারী তার স্বা’মীকে জা’নানোর কথা বললে মুসা তাকে বিয়ে ক’রার আশ্বা’স দেয়।

এবং তার পূর্বের স্বা’মীকে তা’লা’ক দেবার কথা বলে। তারপর থেকে মুসার সাথে তার ঘনিষ্ঠ স’স্পর্ক গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে মহিলা তার স্বা’মীকে তা’লা’ক দেয় এবং চলতি বছরের ১৮ আগষ্ট রাজবাড়ি কোর্টে বিয়ে হয়। এরই মধ্যে মহিলা তার জমানো প্রা’য় দুই লাখ টাকা মুসাকে দিয়েছেন বলে দা’বি ক’রেন। মুসা তাকে বাড়িতে না এনে টালবাহানা ক’রা’য়,

তার সন্দে’হ হয় এবং ক’ল্যাণপুর তাদের বাড়িতে এসে জানতে পারেন মুসা ১৫/২০ দিন পূর্বে আরকটি বিয়ে ক’রে শশুড় বাড়িতে অব’স্থান করছে। এসময় সে স্ত্রীর অধিকার নিয়ে মুসার বাড়িতে থাকতে চাইলে মুসার পরিবারের লোকজন তাকে তাড়িয়ে দেয়। মুসার মা বলেন তার ছেলের বয়স খুবই কম তার মা বয়সী মহিলার সাথে বিয়ে হতে পারেনা। তাদের অভিবাবক বাড়িতে নেই আ’সলে ব্যব’স্থা নিবেন বলে জা’নান।