টানা পাঁচ মাস পর মি’লিত হলেন মিথিলা-সৃজিত

গত বছর ৬ ডিসেম্বর বিয়ে করেছিলেন বাংলাদেশি অ’ভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা ও কলকাতা বাংলা সিনেমা’র নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি। তারপর যে যার দেশে ফি’রে আ’ট’কে গে’লেন লকডাউনে।

অবশেষে টানা পাঁচ মাস পর এই দম্পতি ১৫ আগস্ট মিলিত হলেন বাংলাদেশ-ভা’রত সীমান্তে। বাংলাদেশ থেকে মিথিলা যান ভা’রতে, পে’ট্রাপোল সীমান্তে তাকে বরণ করেন সৃজিত। এসময় মিথিলার স’ঙ্গে দেখা গেছে তার কন্যা আই’রাকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দিয়ে সৃজিত লি’খেছেন, ‘১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্টে ঘৃ’ণার কারণে অনেকেই সীমান্ত পার হয়েছিলেন। আর ২০২০ সালের ১৫ আগস্ট ভালোবাসার জন্য দুজন ফের সীমানা পার হলো।

আরোও পড়ুনঃ যত ডলারে নিলামে উঠেছে মিয়া খলিফার চশমা
প’র্নো দুনিয়ার জনপ্রিয় নাম ছিল মিয়া খলিফা। তবে সবই এখন অতীত। মিয়া খলিফা প’র্নো দুনিয়া ত্যাগ করে অন্য পেশায় মনোযোগী হয়েছেন। সম্প্রতি বিয়ে করে সংসারী হওয়ার প্রস্তুতিও নিয়েছেন। বয়ফ্রেন্ডকে নিয়ে বেশ সুখে আছেন তিনি।

যখন পেশাদার প’র্নোস্টার ছিলেন তখন তাকে খু’নের হু”ম’কি দিয়েছিল নিজের দেশ লেবাননের কট্টরপন্থীরা। দেশটিতে প্রবেশাধিকারও হারান তিনি। কিন্তু আজ মাতৃভূমির সংকটে তিনিই এগিয়ে এলেন সাহায্যের হাত বাড়িয়ে। সম্প্রতি ভয়াবহ বি’স্ফো’রণে বিধ্’বস্ত লেবানন।

দেশের পাশে দাঁড়াতে অর্থসংগ্রহের মিশনে নেমেছিন মিয়া খলিফা। সেজন্য তিনি নিজের বিখ্যাত চশমা নিলামে তুলেছেন। এ থেকে সংগৃহীত অর্থ তিনি ত্রাণে তুলে দিতে চান। এ প্রসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় মিয়া খলিফা জানান, লেবাননের পাশে দাঁড়াতে তার বিখ্যাত চশমা নিলামে তুলছেন তিনি। সেটি বিক্রি করে যে অর্থ তিনি পাবেন,

তা বি’স্ফো’রণ বি’ধ্ব’স্ত দেশের রেড ক্রসের ত্রাণ তহবিলে দান করবেন। গ্লোবাল নিউজ জানিয়েছে, মিয়া চশমাটি ই-বেয়’তে নিলামে তুলেছেন। সেটির মূল্য এখন পর্যন্ত এক লাখ ডলার উঠেছে। নিলাম চালু থাকবে আজ শনিবার বিকাল পর্যন্ত। এই নিলাম থেকে যা অর্থ উঠবে তা পুরোটাই লেবাননের রেড ক্র’সের হাতে তুলে দেবেন মিয়া।